এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে নাটোরের সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস এমপির শোক

প্রকাশিত: ১:১৫ পিএম, মার্চ ৪, ২০২১
  • শেয়ার করুন

সাকলাইন শুভ, নাটোর-৪: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য ও প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনের সংসদ সদস্য, সাবেক সফল প্রতিমন্ত্রী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যাপক মোঃ আব্দুল কুদ্দুস এমপি। সাংসদ মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

হোসেন তৌফিক (এইচ টি) ইমাম বুধবার (৩ মার্চ) দিবাগত রাত ১ টা ১৫মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) মৃত্যুবরণ করেন। কিডনি জটিলতাসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন অসুস্থতা নিয়ে তিনি বেশ কিছুদিন আগে সিএমএইচে ভর্তি হন। সেখানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। মঙ্গলবার (২ মার্চ) বিকাল থেকে তার শারীরিক পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়।

২০০৯ সাল থেকে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন সাবেক এই আমলা। প্রথমে তিনি প্রশাসনিক উপদেষ্টা ছিলেন। ২০১৪ সাল থেকে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। ১৯৩৯ সালে জন্মগ্রহণকারী সাবেক এ সরকারি কর্মকর্তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। শোক প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু এমপি।

এক শোক বার্তায় অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি বলেন, এইচ টি ইমাম একজন দক্ষ, বিচক্ষণ ও দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ছিলেন। ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে তিনি পাকিস্তান সিভিল সার্ভিসের লোভনীয় চাকরিতে ইস্তফা দিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামে শামিল হন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর এইচ টি ইমাম মহান মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে ছিলেন অবিচল। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনায় এইচ টি ইমাম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। তার মৃত্যুতে দেশ একজন সৎ ও বিচক্ষণ কর্মবীরকে হারালো যা এক অপূরণীয় ক্ষতি।

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি, ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি এবং চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।